একসঙ্গে ৭ নাবালিকার বিয়ে রুখলো করলো চাইল্ড লাইন

0
40

নিজস্ব সংবাদদাতা, বালুরঘাট : একসঙ্গে ৭ নাবালিকার বিয়ে রুখলো করলো চাইল্ড লাইন। ঘটনার দিকে নজর রাখা হচ্ছে ।

জানাগেছে, অগ্রহায়নের শুরুতেই সামাজিক বিয়ের উৎসব শুরু হয়েছে। এরমধ্যেই বিভিন্ন প্রান্তে নাবালিকার বিয়ে চলছে বলে খবর আসে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা চাইল্ড লাইনে। সেই অনুযায়ী ১ অগ্রহায়ন প্রথম বিয়ের তারিখে হানা মারা হয় সাতটি জায়গায়।

যৌথ অভিযানে ছিলো চাইল্ড লাইন, জেলা বা ব্লক প্রশাসন, জেলা আইনি পরিষেবা কতৃপক্ষ এবং পুলিশ। সাতটির মধ্যে ৪ টি নাবালিকার বিয়ে আটকানো হয় শুধু কুশমন্ডি ব্লকেই।

অন্য তিনটির মধ্যে বালুরঘাটে ১, কুমারগঞ্জে ১ এবং গঙ্গারামপুরে ১ টি বিয়ে রোধ করা হয়। কুমারগঞ্জের উত্তর করনজি বছর পরেনোর নাবালিকার বিয়ে দেওয়া হচ্ছিলো।

সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নাবালিকাটি স্থানীয় ঢাকঢোল উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেনীতে পরত। ওই ব্লকেরই কাশিয়াডাংগা উথলিয়া এলাকার বছর চোদ্দর অষ্টম শ্রেনীর নাবালিকা ছাত্রীর বিয়ে দেওয়া হচ্ছিল।

আবার বিয়ে হতে যাওয়া কুশমন্ডির শিয়ালা বাসিন্দা দুই নবালিকার মধ্যে একজনের বয়স তেরো ও আরেক জনের সতেরো। তারা দুই জনের স্থানীয় কুশমন্ডি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম ও দ্বাদশ শ্রেনীতে পড়ে। পাশাপাশি গঙ্গারামপুর ব্লকের জালালপুরের বছর ষোলোর, কুমারগঞ্জের দেবীপুরের বছর সতেরো এবং বালুরঘাট ডাকবাংলো পাড়ার বছর পরেনোর নাবালিকার বিয়ে রোধ করা হয়।

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা চাইল্ড লাইনের কো-অর্ডিনেটর সুরজ দাশ বলেন, একটা বড় সাফল্য তাদের। শুধু অবিভাবকদের সচেতন করায় নয়, স্কুল ও এলাকা ভিত্তিক মেয়েদের সচেতন করতে নিয়মিত ক্যাম্প করার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন সুরজ বাবু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here