সদ্য পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্ব পাওয়া বিজেপির সর্বভারতীয় মুখপাত্র তথা আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্যের টুইট # অন্যান্য অনেক নেতার বিনিময়ে, তাঁদের রাজনৈতিক উচ্চাভিলাষকে বলি দিয়েই তৃণমূলে উত্থান ঘটানো হয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের # যার জেরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের অন্দরে বহু নেতারই বিরক্তির কারণ হয়েছে # # অভিষেককে ‘ভাইপো’ সম্বোধন করে মালব্যের দাবি # অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ঘিরে একটি স্বঘোষিত অন্তরঙ্গ গোষ্ঠী তৈরি হয়েছে # তাদের তৃণমূল স্তরের রাজনীতির সঙ্গে কোনও যোগ নেই # কিন্তু, তারাই এখন তৃণমূল কংগ্রেসে শেষ কথা বলছে

0
69

Tweet of Amit Malviya #

Abhishek’s rise in the TMC has been at the cost of many other leaders whose political ambitions have been snuffed out.

This has caused a lot of resentment…

A self-serving coterie around Bhaipo with little or no grassroots connect is calling the shots.

সদ্য পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্ব পাওয়া বিজেপির সর্বভারতীয় মুখপাত্র তথা আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য টুইটে দাবি করেন….

১) অন্যান্য অনেক নেতার বিনিময়ে, তাঁদের রাজনৈতিক উচ্চাভিলাষকে বলি দিয়েই তৃণমূলে উত্থান ঘটানো হয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

২) যার জেরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের অন্দরে বহু নেতারই বিরক্তির কারণ হয়েছে।

৩) সেইসঙ্গে তিনি অভিষেককে ‘ভাইপো’ সম্বোধন করে দাবি করেছেন, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ঘিরে একটি স্বঘোষিত অন্তরঙ্গ গোষ্ঠী তৈরি হয়েছে।

৪) তাদের তৃণমূল স্তরের রাজনীতির সঙ্গে কোনও যোগ নেই। কিন্তু, তারাই এখন তৃণমূল কংগ্রেসে শেষ কথা বলছে।

এর সঙ্গে, বিজেপির সর্বভারতীয় আইটি সেলের প্রধান, ‘স্বরাজ্যম্যাগ ডট কম’ পোর্টালের একটি প্রতিবেদন তুলে দিয়েছেন।

সেই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে তৃণমূলের বেশ কয়েকজন সিনিয়র ও মধ্য স্তরের নেতা রাজনৈতিক কৌশলবিদ প্রশান্ত কিশোর ও তার দলবলের তৃণমূলের দলীয় বিষয়ে আধিপত্যের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে এবং ব্যক্তিগতভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।কিন্তু, এটা আসলে ঝি-কে মেরে বউকে শেখানোর মতো।

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে বিক্ষুব্ধ টিএমসি নেতাদের বিদ্রোহের লক্ষ্য হ’ল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রশান্ত  কিশোর একজন ‘বহিরাগত’ হওয়ায় তাঁকে সহজ ও সুবিধাজনক পাঞ্চিং ব্যাগ হিসাবে বেছে নিয়েছেন তাঁরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here