বেঙ্গল ওয়াচ # সাহিত্যের পাতা # দশম সংখ্যা # ৮ নভেম্বর # অনুবাদ # বিদেশি কবিতা ভাবানুবাদ # অনুবাদ : শুভাশিস ভট্টাচার্য

0
86
অনুবাদ।।।।।।।।।।
বিদেশি কবিতা ভাবানুবাদ।।।।।
অনুবাদ : শুভাশিস ভট্টাচার্য।।।।।।।।
এমিলি ডিকিনসনের কবিতা
সত্য আর সুন্দর (৪৪৯)
সুন্দরের সন্ধানে মরে গিয়ে,
ঠাঁই হল মোর ছোট্ট কবরে,
সত্যের খোঁজে মরেছিল যে,
সে বুঝি শুয়েছিল পাশেরই ঘরে।
জানতে চাইল— মরলে কেন ?
বললাম—  সুন্দর ডেকেছিল তাই।
সে বলল— সত্য আর সুন্দর, সমান দুজনাই;
পাশাপাশি কবরে, মোরা দুই ভাই।
যেন সদ্য পাওয়া স্বজন এক রাতে,
আমরা করি আলাপ অবিরত।
যত দিন না শ্যাওলা ঢাকে ঠোঁট,
মিলিয়ে যায় নামের যত ক্ষত।
———-
মৃত ঈশ্বরের খোঁজে (১৫৫১)
মরণাপন্ন মানুষের দল,
হয়তো ভেবেছিল—
ওদের গন্তব্য ঈশ্বরের ডান হাত
জানত না যে, সে হাত আর নেই
আর ঈশ্বরও মারা গেছে বহুকাল—
বিশ্বাস হারিয়ে গেলে বুঝি
মানুষ অমানুষ হয়ে যায়—
আলেয়ার আলো— সে কি
অন্ধকারের চেয়ে ভাল হয়?
———-
কবি পরিচিতি
আমেরিকান কবি এমিলি ডিকিনসনের জন্ম ১৮৩০ সালে। তাঁর প্রায় আঠারোশো কবিতার মধ্যে কেবল দশটি কবিতা তাঁর জীবদ্দশায় প্রকাশিত হয়েছিল বলে জানা যায়। এমিলি ডিকিনসনের বাকি কবিতাগুলঝ তাঁর মৃত্যুর পরে বোন লাভিনিয়ার সহায়তায় প্রকাশিত হয়।
এমিলি ডিকিনসন, জীবনের সারমর্মের সন্ধানে, শব্দের বাহুল্য বর্জিত এক নিজস্ব কবিতাশৈলী তৈরি করেছিলেন, যাতে তিনি ক্রিয়াপদ এবং অব্যয় অবহেলায় বাদ দিয়ে, ভাঙা ছন্দ, ড্যাশ চিহ্ন ব্যবহারের মাধ্যমে এক নূতন প্রকাশ-রীতির প্রচলন করেন, যা উনিশ শতকের সমসাময়িকদের তুলনায় একেবারে আলাদা এবং বৈপ্লবিক ছিল। তিনি তাঁর কবিতায় যে রকম ছন্দের ব্যবহার করেছিলেন, তা সেই সময় স্বীকৃত না হলেও, আধুনিক কবিরা ব্যবহার করেছেন।
এমিলি ডিকিনসন জীবনের অন্তর্দর্শনের রহস্যময়তার কবি। তাঁর কবিতায় প্রকাশ পেয়েছে মানুষের অন্তর্জগতের দ্বন্দ্ব, ভালবাসা, ধর্ম এবং অমরত্ব সম্পর্কে সংশয়। তাঁর কবিতায় প্রায়শই মৃত্যু এসেছে প্রেমিকের রূপে। প্রেমের স্নিগ্ধতার সঙ্গে মিশে গেছে আবেগের তীব্রতা। সে প্রেম জাগতিক না আধ্যাত্মিক তা বিচারের ভার পাঠকের উপর ছেড়ে দেয়াই সমুচিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here