বেঙ্গল ওয়াচ # সাহিত্যের পাতা # একাদশ সংখ্যা # কবিতা # টুম্পা মিত্র সরকার # গোপা চক্রবর্তী # ইতিকা বিশ্বাস # স্বপনকুমার বিজলী # সুপ্রভাত মেট্যা

0
28
কবিতা।।।।।।।
সেই ছেলেটা
টুম্পা মিত্র সরকার।।।।।।।।।
এই ছেলেটা বলছি তোকে
তাকাস কেন অবাক চোখে
ডাকলে পরে মেঘ উজানি আকাশ?
চিলেরছাদে ঘুঘুর ডাকে
দুপুরে মা’র ঘুমের ফাঁকে
দেখলে ফড়িং গুলতিখানা বাগাস?
ওই যে বড়ো দিঘির পারে
হাঁস লুকালো ডুব সাঁতারে
তার মতো কি পুকুরজলে ঝাঁপাস?
দুধঝলমল সন্ধেবেলা
ফুলজোনাকি তারার মেলা
ওদের গায়ে স্বপ্ন কি তুই মাখাস?
নাকি রোজই পড়ার ভিড়ে
স্বপ্নগুলো হারিয়ে কি রে
বিষন্নতার বাতাস বুকেই হাঁপাস?
বলছি তোকে শোনরে ছেলে
নে কুড়িয়ে দু’চোখ মেলে
হঠাৎ জাগা সুখটুকু তুই যা পাস!
———-
কুমির।।।।।।
গোপা চক্রবর্তী।।।।।।।।।।।
খাল কেটে কুমির আনছ আনো
নির্জন দুপুরে কিংবা জনসমক্ষে নাচিয়ে নাচিয়ে নিয়ে যাবে যখন বেঁচে ওঠার মন্ত্রটা আগে জানো।
সুন্দরবনে যে বিধবা গ্রাম আছে
তাদের পুরুষরা গিয়েছিল পেটের দায়ে
কাঠ কাটতে নয়তো কাঁকড়া ধরতে
যুবতী বধূর কাছে ফেরা হয়নি আর।
যারা খাল কেটে কুমির আনছ
জেনে রেখো গ্রাম থেকে গ্রাম বিপত্নীক  হবে।
তোমরাও রক্তাক্ত হবে।
রক্তের বসন্ত ঊৎসব শুরু হবে
দোল পূর্ণিমাতে।
———-
অপেক্ষা।।।।।।।
ইতিকা বিশ্বাস।।।।।।।।।।
অপেক্ষা দেখতে দেখতে কয়েক মাস
সবাই তাকিয়ে আছে আশা নিয়ে দীর্ঘশ্বাস
বাস ট্রাম স্তব্ধ ছিল মাঝে মধ্যে অনেকবার
তবুও নিষ্পত্তি হয়নি, ছড়িয়ে ছিটিয়ে একাকার।
হারিয়েছে অনেকে
আবার ক্ষুধার তারনায় বিচরন এদিকে সেদিকে
ওরা মৃত্যুকে পায়নি ভয়
ক্ষুধার যন্ত্রণাকে করতে চায় জয়।
স্পেশালের মাঝেও কত বাড়াবাড়ি
জীবিকার জন্য ছুটছে এ গাড়ি ও গাড়ি
কিছু করার নেই একালের অপেক্ষা
যদি চলে লোকাল ট্রেন তার প্রতিক্ষা।
———-
নদীর কাছে।।।।।।।।
স্বপনকুমার বিজলী।।।।।।।।।
সময় পেল জোয়ার এলে
দাঁড়াই গিয়ে
নদীর ঘাটে সময় কাটে
নৌকা নিয়ে।
বাউল গেয়ে হালটি বেয়ে
জলে ভাসি
হেলেদুলে পালটি তুলে
ঘুরে আসি।
ঢেউয়ের মেলা করে খেলা
নদীর বুকে
সুয্যি এসে ওঠে হেসে
দেখি সুখে।
যেই মা ডাকে পড়ে থাকে
খুশির খেলা
ছুটে পরে ফিরি ঘরে
দুপুর বেলা।
———-
কথা কাহিনির দেশে।।।।।।।।
সুপ্রভাত মেট্যা।।।।।।।
আনন্দ, সন্ধ্যা হয়ে এলে তারাফুলে ফুটে থাকে বাতি। আলো প্রদীপের শিখায় কাজল মেয়ে স্বপ্ন দেখে। আগুন অনন্তের গান বেজে ওঠে বুকে। পুড়ে যাওয়া তেলের ঐশ্বর্য খুইয়ে জেগে থাকে আলো। দুঃখ শলাকা ভেসে ওঠে, শোকের পুকুরে তখন কালো কালো মুখ, মৎস্যকন্যা ছিপের কাঁটায় বিদ্ধ!
মৃদু মৃদু কথা, ভাতের বাড়ন্ত চাল নিয়ে আড়াআড়ি চোখ, বালিশ আর বিছানায় গাঢ় শূন্যতা, তুমি রাত্রি পেরিয়ে নিঃশব্দ হেঁটে যাও দূরে, কথাকাহিনির দেশে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here