বেঙ্গল ওয়াচের সাহিত্যের পাতা # ২৯ নভেম্বর # ত্রয়োদশ সংখ্যা # অনুবাদ # বিদেশি কবিতা ভাবানুবাদ অনুবাদ : শুভাশিস ভট্টাচার্য

0
32
অনুবাদ
বিদেশি কবিতা ভাবানুবাদ
অনুবাদ : শুভাশিস ভট্টাচার্য।।।।।।।।।।।।
এমিলি ডিকিনসনের কবিতা
অমরত্বের রথ  (৪৭৯)
মৃত্যুর জন্য দাঁড়াতে পারিনি তাই—
মৃত্যু এসে দাঁড়াল আমার পাশে—
থেমে গেল তাঁর রথ। শুধুমাত্র আমরা—
এবং অমরত্ব আমাদের আকাশে।
ধীরে ধীরে চলল আমাদের রথ—
আজ কোনও তাড়া নেই বুঝি তাঁর—
তাঁর সৌজন্যে— আমিও ভুলেছি
সমস্ত কাজ এবং অবকাশ আমার।
পেরিয়ে এলাম খেলায় মত্ত  শিশুদের—
ছুটির ঘণ্টা বুঝি পড়েছে পাঠভবনে।
পেরিয়ে এলাম ক্ষেত সোনালি ধানের—
পেরিয়ে এলাম অস্তগামী সূর্য দিনান্তে—
অথবা বুঝি- সেই পেরিয়ে গেল আমাদের—
ক্রমশ হিমের পরশ লাগল শরীরে— শীতল—
আমার যৎসামান্য পোশাক— জীর্ণ—
অন্তর্বাস ছিঁড়ে ছুঁয়ে গেল অনন্ত অতল—
পথের শেষে এলাম শুরুর শুরুতে
মাটির কাছাকাছি— আকাশের কোলে
আগুনের স্পর্শ নিয়ে— হাওয়ায় হাওয়ায়
চিতা ভস্মে ভেসে যাই বহমান জলে—
তারপর— কেটে গেছে  হাজার বছর—
তবু মনে হয়— সবই সদ্য ঘটে যাওয়া
বুঝি এতদিনে আমি বুঝতে পারলাম
ঘোড়ার কেশরে ছিল অনন্তের হাওয়া—
———-
মৃত্যুর মুখ ( ২৪১)
মৃত্যুর মুখ আমার বড় প্রিয়,
কারণ সে হল সত্যের আয়না—
মৃত্যুযন্ত্রণার ভান করে না
মানুষ অথবা মরণের অভিনয়—
চকচক করে ওঠে চোখগুলো—
বুঝি, মৃত্যুর হাতছানি—
জানি, নকল করা সম্ভব নয় সেই চাহনি—
যখন জমেছে বিন্দু বিন্দু ঘাম কপালে
যেন পরিচিত যত বেদনার জপমালা।
———-
কবি পরিচিতি : আমেরিকান কবি এমিলি ডিকিনসনের জন্ম ১৮৩০ সালে। তাঁর প্রায় আঠারোশো কবিতার মধ্যে কেবল দশটি কবিতা তাঁর জীবদ্দশায় প্রকাশিত হয়েছিল বলে জানা যায়। এমিলি ডিকিনসনের বাকি কবিতা তাঁর মৃত্যুর পর বোন লাভিনিয়ার  সহায়তায় প্রকাশিত হয়।
এমিলি ডিকিনসন জীবনের অন্তর্দর্শনের রহস্যময়তার কবি। তাঁর কবিতায় প্রকাশ পেয়েছে মানুষের অন্তর্জগতের দ্বন্দ্ব, ভালবাসা, ধর্ম এবং অমরত্ব সম্পর্কে সংশয়। তাঁর কবিতায় প্রায়শই মৃত্যু এসেছে প্রেমিকের রূপে। প্রেমের স্নিগ্ধতার সঙ্গে মিশে গেছে আবেগের তীব্রতা। সে প্রেম জাগতিক না আধ্যাত্মিক তা বিচারের ভার পাঠকের উপর ছেড়ে দেয়াই সমুচিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here