বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডার কনভয়ে হামলা নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব ডেকে পাঠালেও দিল্লি যাচ্ছেন না মুখ্যসচিব ও ডিজি

0
39

নিজস্ব সংবাদদাতা #   বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডার কনভয়ে হামলা নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব ডেকে পাঠালেও দিল্লি যাচ্ছেন না ডিজি ও মুখ্যসচিব ।

 

শুক্রবার স্বরাষ্ট্রসচিবকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিলেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, ইতিমধ্যেই ওই ঘটনায় ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জেপি নাড্ডার যাতায়াতের জন্য  পুলিশ বুলেট ব্রুফ গাড়ি দিয়েছিল। তার যাত্রাপথে পুলিশ পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছিল।

 

বৃহস্পতিবার  বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার কনভয়ে হামলার ঘটনায় মুখ্যসচিব ও ডিজিকে তলব করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক । ১৪ ডিসেম্বর তাদের দিল্লিতে যেতে বলা হয়  ।

 

তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এভাবে কেন্দ্রীয় সরকার তাঁদের ডাকতে পারে না । এটা অসাংবিধানিক ।

 

জেপি নাড্ডার কনভয়ে হামলার ঘটনায়  রাজ্যপালের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ৷ সেইমতো রিপোর্ট পাঠান রাজ্যপাল ।

 

তারপরই মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় ও ডিজিপি বীরেন্দ্রকে দিল্লিতে তলব করা হয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে।

 

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় ভাল্লাকে লেখা ওই চিঠিতে মুখ্যসচিব দিল্লিতে গিয়ে হাজিরা থেকে অব্যহতি  প্রার্থনা করেছেন।

চিঠিতে  মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়  জানিয়েছেন, ঘটনাটিকে গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করে দেখছে রাজ্য সরকার। দোষীদের চিহ্নিত করে শাস্তি দেওয়ার ব্যবস্থা হচ্ছে। ফলে তাঁকে দিল্লি গিয়ে হাজিরা দেওয়া থেকে অব্যহতি দেওয়া হোক।

মুখ্যসচিব লিখেছেন, বৃহস্পতিবার জেপি নড্ডার কনভয়ে প্রচুর বাইরের গাড়ি ছিল। একজন জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তাধারীর কনভয়ে যা থাকতে পারে না। কনভয়ে থাকা গাড়ি থেকে বাইরে নানা রকম অঙ্গভঙ্গী করা হয় যা থেকে ছড়ায় উত্তেজনা।

কেন্দ্রের   ডেকে পাঠানোর  চিঠি নিয়ে শুক্রবার বিকেলে তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠকে দলের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আইন-শৃঙ্খলা রাজ্যের ব্যাপার। এব্যাপারে রাজ্য সরকার শুধুমাত্র বিধানসভায় জবাবদিহি করতে বাধ্য। অন্য কারও কাছে এই নিতে বলতে বাধ্য নয় তারা। কোন আইনে একটি নির্দিষ্ট ঘটনার জন্য রাজ্যের আধিকারিকদের কেন্দ্র তলব করেছে তা জানানোর জন্য চ্যালেঞ্জ ছোড়েন তিনি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here