বসিরহাটে গৃহবধূর সন্তান না হওয়ায় খুন, অভিযোগ শ্বাশুড় বাড়ির বিরুদ্ধে

0
53

 

অর্ণব মৈত্রঃ বসিরহাট জিরাকপুর গ্রামের বাসিন্দা চিরনজিৎ কুন্ডুর স্ত্রী পিঙ্কি কুন্ডু। শনিবার দুপুর বারোটা নাগাদ অ্যাসিড আক্রান্ত অবস্থায় ওই গৃহবধূকে ভর্তি করা হয় বসিরহাট জেলা হাসপাতালে। হাসপাতালে ভর্তির কয়েক মিনিটের মধ্যেই মৃত্যু হয় তার।

গৃহবধূর মৃত্যুর পিছনে শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে শারিরীক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে বাপের বাড়ি পক্ষ থেকে। গৃহবধূকে শারীরিক ও মানসিক অত্যাচারের অভিযোগ তুলে গৃহবধূর বাবা নিরঞ্জন সাহা বলেন, ‘বিয়ের পরথেকে সন্তান না হওয়ায় মেয়েকে নির্যাতন করতো শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। নির্যাতনের কারনেই আমার মেয়ের মৃত্যু হয়েছে’।

আনুমানিক পাঁচ বছর আগে চিরঞ্জৎ কুন্ডুর সঙ্গে বিয়ে হয় পিঙ্কির। পিংকির মৃত্যুর বিষয়ে কথা বললে তার স্বামী চিরঞ্জিৎ কুন্ডু জানান, ‘বিয়ের পর থেকে আমাদের কোন সন্তান না হওয়ায় মানসিক অবসাদে মাঝেমধ্যে সাংসারিক অশান্তি ছিল পরিবারের। দুদিন আগে বাপের বাড়ি যেতে চেয়েছিল কিন্তু আমি বারণ করি।

তারপরই আজ দুপুরে আমি বাড়ি না থাকায় সেই সময় নিজের ঘরে অ্যাসিড খেয়ে আত্মহত্যা করে’। তবে শ্বশুরবাড়ির নির্যাতনে জন্যই ওই গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে বলে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে গৃহবধূর পরিবারের পক্ষ থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here