পোষ্য টিয়াই বাঁচাল মালিকের প্রাণ # সিদ্ধার্থ সিংহ

0
39

পোষ্য টিয়াই বাঁচাল মালিকের প্রাণ

 

সিদ্ধার্থ সিংহ

 

অস্ট্রেলিয়ায় একটি পোষা টিয়া পাখি যে ভাবে তার মালিকের প্রাণ বাঁচাল, সেটা সত্যিই অবিশ্বাস্য।

 

টিয়া পাখির মালিক ব্রিসবেনের বাসিন্দা অ্যান্টন এনগুয়েনের বাড়িতে সম্প্রতি আগুন লাগে। তিনি তখন ঘুমে বিভোর।

 

ঘরের স্মোক ডিটেক্টর কাজ করার আগেই তারস্বরে চিৎকার শুরু করে দেয় তাঁর পোষা টিয়া পাখিটি।

 

সেই চিৎকারে ঘুম ভেঙে যায় তার মনিবের। ঘুম-চোখেও তিনি বুঝতে পারেন, এই চিৎকার সাধারণ চিৎকার নয়! এটা নিশ্চয়ই কোনও সতর্ক বার্তা! এটা মনে হতেই ধড়মড় করে ঘর থেকে বেরিয়ে পড়েন তিনি।

 

অ্যান্টন জানিয়েছেন, তিনি প্রথমে কিছু বুঝতেই পারেননি। কারণ, তখনও স্মোক অ্যালার্ম বাজতে শুরু করেনি। তিনি পোড়ার কোনও গন্ধও টের পাননি। ‌

 

কিন্তু তাঁর পোষা টিয়া ‘এরিক’ নিশ্চয়ই ধোঁয়ার গন্ধ পেয়েছিল! তা না হলে সে ওই ভাবে গলা ফাটিয়ে চিৎকার করবে কেন।

 

সে বার বার ‘অ্যান্টন’, ‘অ্যান্টন’ বলে ডাকতে থাকে। আর তাতেই ঘুম ভেঙে যায় তাঁর। না, ও তো এই রকম ভাবে কখনও ডাকে না! তার মানে নিশ্চয়ই খারাপ কিছু একটা ঘটতে চলেছে।

 

এটা আন্দাজ করেই, ‌সারা ঘরে আগুন ছড়িয়ে পড়ার আগেই তিনি সঙ্গে সঙ্গে এরিককে নিয়ে দরজা খুলে তড়িঘড়ি বাড়ির বাইরে চলে আসেন।

 

বাড়ির পেছন দিকে গিয়ে দেখেন, জানালা থেকে হু হু করে ধোঁয়া বেরোচ্ছে।

 

কুইন্সল্যান্ড ফায়ার অ্যান্ড ইমার্জেন্সি সার্ভিসের ইন্সপেক্টর ক্যামেরন থমাস বলেন, বুদ্ধিমান টিয়া পাখি এরিকের চিৎকার শুধু তার নিজের জীবনই বাঁচায়নি, তার মালিকের জীবনও বাঁচিয়েছে।

 

স্মোক ডিটেক্টর কাজ করার আগেই টিয়াটি বুঝতে পেরেছিল‌ কোথাও আগুন লেগেছে।

 

সময় মতো দমকল পৌঁছে যাওয়ায় আগুন আশপাশের বাড়িতে ছড়িয়ে পড়তে পারেনি বলে থমাস জানিয়েছেন।

 

এবং টিয়া পাখিটির এই কীর্তির কথা শুনে এলাকার সবাই এখন ধন্য ধন্য করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here