তৃণমূল হারলে হারবে প্রশান্ত কিশোরের জন্যই # কেননা পিকের টিম তৃণমূলের মধ্যে বিভাজন তৈরি করছে # মুখ খুললেন জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়ির তৃণমূল বিধায়ক  অনন্তদেব অধিকারী # শুধুই দেনা-পাওনা # দলনেত্রীকেও লিখেছেন

0
42

নিজস্ব সংবাদদাতা # এবার তৃণমূলের  পরামর্শ দাতা প্রশান্ত কিশোরের  বিরুদ্ধে সরব হলেন আরও এক উত্তরবঙ্গের তৃণমূল বিধায়ক  অনন্তদেব অধিকারী।

পাশাপাশি দলের গণ আন্দোলনের কোনও কর্মসূচি নেই বলেও অভিযোগ করেছেন ওই বিধায়ক। নিজের অসন্তোষের কথা জানিয়ে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠিও দিয়েছেন ওই বিধায়ক।

জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়ির তৃণমূল বিধায়ক অনন্তদেব অধিকারী প্রশান্ত কিশোরের কাজের জন্য সাংগঠনিক ক্ষতি হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ।

তিনি বলেন…….

১) পিকের টিম অরাজনৈতিক।

২) কোনও রাজনৈতিক জ্ঞান তাঁদের নেই।

৩) তাঁরা গ্রামের মানুষের ভাষা বোঝে না। গ্রামের মানুষের সঙ্গে তারা মিশতেও পারে না।

৪) এই পরিস্থিতিতে তাঁরা রিপোর্ট তৈরি করে পাঠাচ্ছে।

৫) এক এক ব্লকের চাহিদা এক এক রকমের।

৬) কলকাতায় বসে এসব কাজ করা যায় না।

৭).দল হারলে হারবে প্রশান্ত কিশোরের জন্যই।

৮) কেননা পিকের টিম দলের মধ্যে বিভাজন তৈরি করছে।

ময়নাগুড়ির তৃণমূল বিধায়ক অনন্তদেব অধিকারীর অভিযোগ, গণ আন্দোলন নিয়ে দলের কোনও কর্মসূচি নেই।  নতুন কৃষি আইনের বিরুদ্ধেও গণ আন্দোলন গড়ে তোলা যায়নি। গণ আন্দোলন ছেড়ে শুধু মাত্রা দেনা-পাওনা দিয়ে দলকে শক্তিশালী করা যায় না বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

তিনি বলেন, বিজেপি ও কেপিপির লোকেরা বলছেন, বিজেপি বা কেপিপি করলেও তো একই সুবিধা পাওয়া যাবে। তাহলে তৃণমূল করতে যাব কেন?

তিনি  জানিয়েছেন, এলাকার সমস্যা এবং পিকের কাজ নিয়ে তিনি মুখ্যমন্ত্রী তথা দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখেছেন। তবে তিনি জানিয়েছেন, নীতিভ্রষ্ট হবেন না। দরকারে রাজনৈতিক অবসর নেবেন ।

২০১১ সালে তিনি ময়নাগুড়ি থেকে আরএসপি প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করেছিলেন।

তারপর তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় তৃণমূলে যোগ দেন।

এরুপর ২০১৪ সালের উপনির্বাচন এবং  ২০১৬-র নির্বাচনে তিনি তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে এই কেন্দ্র  থেকে জয়ী হন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here