এক মর্মান্তিক পদ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলো বাবা মা,ছেলে সহ একই পরিবারের তিন জনের

0
61

অতনু গোস্বামী নদীয়া:- বৃহস্পতিবার রাতে নদিয়ার কালীগঞ্জ থানার অন্তর্গত পাগলাচন্ডী এলাকায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে এক মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল, বাবা মা ও ছেলে সহ একই পরিবারের তিনজনের।

পুলিশ সুত্রে জানা যায় , মৃতরা হলেন হেমন্ত মন্ডল (৫২) হেমন্ত বাবুর স্ত্রী দয়াময়ী মন্ডল (৪১) এবং তাদের ছেলে শুভজিত মন্ডল (২১)। মৃতরা কালীগঞ্জ থানার অন্তর্গত পানিঘাটা গ্রামে বাসিন্দা।

দুর্ঘটনার খবর গ্রামে ওই পরিবারের পৌঁছাতেই গোটা গ্রাম জুড়ে শোকের ছায়া নেমে আসে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন রাতে হেমন্ত মন্ডল বাইকে করে স্ত্রী ও ছেলে কে নিয়ে পাগলাচন্ডী স্টেশনের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন।

পথে পাগলাচন্ডী সেতুর কাছে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের উপরে উল্টো দিক থেকে আসা একটি বড় গাড়ির সঙ্গে তাদের মোটর বাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় বাইক আরোহী হেমন্ত মন্ডলের। অপর দুই আরোহী মা ও ছেলে দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়। দুর্ঘটনার পরই ঘাতক গাড়িটির চালক গাড়ি সহ এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায়।

খবর পেয়ে কালীগঞ্জ থানার পুলিশ দুর্ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। পরে স্থানীয়দের সাহার্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় মা ও ছেলে কে শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

Poসেখানেই চিকিৎসকেরা শুভজিত কে মৃত বলে ঘোষণা করে। অপর আহত দয়াময়ী মন্ডলের অবস্থার অবনতি হলে, তাঁকে কলকাতার নীল রতন সরকার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। হাসপাতালে যাওয়ার পথে মৃত্যু হয় দয়াময়ী দেবীর।

ঘটনার দিন হেমন্ত বাবু তাঁর পরিবারকে সাথে নিয়ে সম্ভবত চিকিৎসা করার উদ্দেশ্যে কলকাতার যাওয়ার জন্য পাগলাচন্ডী স্টেশনে যাচ্ছিলেন ও তারাতারি গন্তব্য স্থলে পৌঁছাবেন বলে রাত করে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন বলে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here