একসঙ্গে চার মেয়ে আর দুই ছেলের জন্ম দিলেন এক মা # সিদ্ধার্থ সিংহ

0
19

একসঙ্গে চার মেয়ে আর দুই ছেলের জন্ম দিলেন এক মা

সিদ্ধার্থ সিংহ

পোল্যান্ডে প্রথমবারের মতো একসঙ্গে ছয় সন্তানের জন্ম দিলেন এক মা। ছয় সন্তানের মধ্যে চারটি মেয়ে আর দুটি ছেলে।

সমীক্ষায় দেখা গেছে, গোটা পৃথিবীতে এই ধরনের ঘটনা ঘটে সাধারণত প্রতি ৫০০ কোটি মহিলার মধ্যে মাত্র একজনের।

পোল্যান্ডের ক্রাকুফ বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালে গত সোমবার ওই শিশুদের জন্ম হয়। গর্ভধারণের ২৯ সাপ্তাহের মধ্যেই সিজারিয়ানের মাধ্যমে তারা পৃথিবীর আলো দেখে। চিকিৎসকেরা অনুমান করেছিলেন মহিলাটি পাঁচ-পাঁচটি শিশুর জন্ম দেবেন।

হাসপাতালের চিকিৎসক রিসার্দ লাউটারবাখ বলেন, সৌভাগ্যবশত সব কিছু পরিকল্পনা মতো হয়েছে। সব কিছুই ঠিকঠাক ছিল। তবে একটি বিষয় ব্যতিক্রম ছিল।

আমরা যখন পঞ্চম শিশুটি মাতৃজঠর থেকে বের করে আসলাম, তখন সকলেই বেশ নিশ্চিন্ত হলাম সব কিছু নিরাপদে হয়েছে দেখে। ঠিক তখনই দেখলাম, পেটের মধ্যে আরও একটি শিশু। এটা আমাদের হিসেবের মধ্যে ছিল না। এটি একটি ব্যতিক্রমী ঘটনা।

এর পরই আমরা আবার নতুন করে যন্ত্রপাতি রেডি করলাম। পরে আরও একটি চিকিৎসক দল নিয়ে ষষ্ঠ শিশুটিকেও বের করে আনি।

এই ঘটনায় শুধু চিকিৎসকরাই নয়, বিস্মিত হয়েছেন বাচ্চাগুলোর বাবা-মাও। কারণ তাঁরাও ষষ্ঠ সন্তানটির মুখ দেখার জন্য প্রস্তুত ছিলেন না।

ছটি সন্তান জন্ম দেওয়া মা ক্লাউডিয়া মাজেক জানান, এটি আসলে অবাক করার মতো ঘটনা। আমরা পাঁচটি শিশুরই প্রত্যাশা করছিলাম। কিন্তু পরে দেখলাম ছয়টি শিশু।

প্রথমে দিকে আমার নানান রকম শারীরিক কষ্ট হয়েছিল। সন্দেহ ছিল, এত বড় ধকল আমি নিতে পারব কি না!‌ কিন্তু পরে যখন এক কন্যাশিশুকে ছুঁয়ে দেখলাম তখন সমস্ত কষ্ট যে কোথাও উধাও হয়ে গেল!

২৯ বছর বয়সি ক্লাউডিয়া মাজেকের আড়াই বছরের আরও একটি ছেলে রয়েছে। সে আড়াই বছর বয়সেই একসঙ্গে ছ’-ছ’টি ভাই-বোন উপহার পেয়ে খুবই খুশি। কারণ, ভাই-বোন তো নয়, তার কাছে এগুলো এখন খেলনা। জীবন্ত খেলনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here